ad
ad

Breaking News

Parliament

নানা ইস্যুতে সংসদে বিরোধীদের সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে মোদি সরকার

সংসদের ভিতরে –বাইরে বিরোধীদের সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে পড়ল মোদি সরকার।বিরোধীরা আরও সোচ্চার কণ্ঠে অভিযোগ করে,সরকার আলোচনায় ভয় পায়

The Modi government is under attack from the opposition in the parliament on various issues

সংগৃহীত

Bangla Jago Desk: সংসদের ভিতরে –বাইরে বিরোধীদের সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে পড়ল মোদি সরকার।বিরোধীরা আরও সোচ্চার কণ্ঠে অভিযোগ করে,সরকার আলোচনায় ভয় পায়।মূল ইস্যু ছেড়ে নজরঘোরানো নানা বিষয়ে সময় নষ্ট করে।বিরোধীরা বারবার এই অভিযোগ করেছে।তবুও কেন্দ্রের মোদি সরকার,পুরনো অবস্থান থেকে নড়ছে না।নিটের মতো শিক্ষা দুর্নীতি নিয়ে কোনও অবস্থান স্পষ্ট করছে না।

[ আরও পড়ুন: Nabanna: সরকারি নথি ফাঁস রুখতে সিসিটিভি নবান্নে, নজরদারি অন্য তিন দফতরেও

সোমবার সভা শুরু থেকেই কংগ্রেস-তৃণমূল কংগ্রেস-ডিএমকে সহ অন্যান্য সাংসদরা সবিস্তারে আলোচনা চেয়ে সোচ্চার হয়। বিরোধীরা অভিযোগ করে শাসকপক্ষ শিক্ষার বেনিয়মের মূলকথায় আসছে না।তাই বিরোধীরা একযোগে বিজেপি বিরোধী সুর চড়ায়।সংসদ ভবন চত্বরে বিরোধীরা বিক্ষোভ দেখায়।এরপর বিরোধীরা সংসদের ভিতরে একের পর এক ইস্যুতে বিজেপি সরকারকে বেঁধে। সোমবার রাহুল শিব, হজরত মহম্মদ, গুরু নানক এবং জিশুখ্রিষ্টের ছবি দেখিয়ে  ধর্মনিরপেক্ষতা ও অহিংসার ধারণা ব্যাখ্যা করেন। শিবের ছবি দেখিয়ে রাহুল বলেন, “আপনি যদি প্রভু শিবের ছবি দেখেন, তবে বুঝবেন হিন্দুরা কখনও ভয়, হিংসা ছড়াতে পারে না। কিন্তু বিজেপি সর্ব ক্ষণ ভয়, ঘৃণা ছড়িয়ে বেড়ায়।”এরপরই   রায়বরেলীর কংগ্রেস সাংসদ বলেন, “মোদী, বিজেপি, আরএসএস-ই কেবল হিন্দু নয়।”হিন্দুত্বের সহিষ্ণুতা,সর্বধর্ম সমন্বয়ের মতো বিষয়ে আলোকপাত করেন রাহুল গান্ধী। যদিও রাহুল গান্ধী  এই ইস্যুতে সরকারকে তুলোধনা করেন। বিজেপির সাংসদরা পাল্টা সরব হন, হিন্দুত্বকে অপমান করা হয়েছে।

কংগ্রেস সহ ইন্ডিয়া জোটের সাংসদদের কটাক্ষ, আসলে কেন্দ্রের সরকার ধর্মনিরপেক্ষতাকে সম্মান করছে না। তাই গলা চড়িয়ে বিরোধীদের কন্ঠস্বর স্তব্ধ করতে চাইছে।  বিরোধীরা সংসদের ভিতরে সরকারকে চেপে ধরায় কার্যতঃ দুই শিবিরের তীব্র বাদানুবাদ বেঁধে যায়। রাহুল গান্ধী   স্পিকার ওম বিড়লার কাছে জানতে চান,কেন অধ্যক্ষ  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে মাথা নত করেন ?শপথ অনুষ্ঠানের সময় মোদির প্রতি মাথা ঝোঁকানোর প্রসঙ্গ উঠে আসে রাহুল গান্ধীর  কথায়।সেসময় স্পিকার বুঝিয়ে দেন,তিনি প্রয়োজনে মোদির পা ছুঁতে পারেন।এই ঘটনায় বিরোধী শিবির স্পিকারের নিরপেক্ষ ভূমিকা পালনের আবেদন রেখেছে।